খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে ধানের শীষকে বিজয়ী করতে হবে : মির্জা ফখরুল

384

প্রতিদিন মিথ্যাচার করে জনগণকে বিভ্রান্ত করছে জুলুমবাজ ও মিথ্যাবাদী সরকার বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি আরো বলেন, মিথ্যা অপবাদে খালেদা জিয়াকে কারাগারে রেখে তাকে অসুস্থ করা হয়েছে। তাই তাকে মুক্ত করতে হলে ধানের শীষকে বিজয়ী করতে হবে। সকল বাধা উপেক্ষা করে আগামী ৩০ ডিসেম্বর ভোট কেন্দ্রে আসতে হবে। ওই দিন আপনাদের ভোট নির্ধারণ করবে স্বাধীনতা থাকবে কিনা। নায় বিচার প্রতিষ্ঠা, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, বহুদলীয় গণতন্ত্র ফিরে আসবে কিনা?

আজ বুধবার বিকেলে বগুড়া সদরের বাঘোপাড়া শহীদ দানেশ উদ্দিন স্কুল ও কলেজ মাঠে নির্বচনী জনসভায় বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর এসব কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, ৩০ ডিসম্বের সকাল থেকে সারাদিন সবাইকে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে ধানের শীষে ভোট দিয়ে কেন্দ্র পাহারা দিতে হবে। ফল নিয়ে তারপর বাড়ি ফেরার আহ্বানও জানান তিনি।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, বগুড়াসহ সারাদেশে ধানের শীষের গণজোয়ার দেখে সরকার নির্বাচন বানচাল করতে সব কিছু করছে।

জনসভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্যে নাগরিক ঐক্যের আহ্বায়ক ও বগুড়া-২ আসনের ধানের শীষের প্রার্থী মাহমুদুর রহমান মান্না বলেন, এতদিন মার খেয়েছেন , এখন একদিন লড়াই করুন। কারণ আসল খেলা ওইদিন হবে। তিনি বলেন, পুলিশ কর্মকর্তারা ড. কামাল হোসেনের কাছে গিয়ে ক্ষমা চেয়েছে। এতে বুঝা যায়, পুলিশ একটু ভালো হয়ে গেছে। র‌্যাব, বিজিবি, সেনাবাহিনী সবাই আমাদের সন্তান। আপনারা সবাই জনগণের পক্ষে নিরপেক্ষ থাকুন। নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, আপনারা নিজের ভোট দিয়ে কেন্দ্র পাহারা দেবেন, যেন কেউ ভোট চুরি করতে না পারে। যত গ্রেপ্তার করা হচ্ছে মানুষ ততই বাড়ছে। তাই কোন লাভ হবেনা। আমরা শেষ খেলা খেলব দেখি সরকারের কত জোর আছে ।

বগুড়া সদর উপজেলা বিএনপির সভাপতি মাফতুন আহমেদ খান রুবেলের সভাপতিত্বে ও মহিলা দল নেত্রী নাজমা আক্তারের পরিচালনায় জনসভায় আরো বক্তব্য দেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট একেএম মাহবুবর রহমান, জেলা সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন চাঁন, সাবেক জেলা সভাপতি রেজাউল করিম বাদশা, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আলী আজগর হেনা, শহর সভাপতি মাহবুবর রহমান বকুল, বিএনপি নেতা এম আর ইসলাম স্বাধীন, তাহা উদ্দিন নাহিন, সহিদ উন নবী সালাম, যুবদল নেতা খাদেমুল ইসলাম, ছাত্রদল নেতা আবু হাসান ও নূরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান প্রমুখ।