নির্বাচন নিয়ে বাম জোটের গণশুনানি

540

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের পূর্ব, নির্বাচনের দিন এবং নির্বাচন পরবর্তী নানা ধরনের অনিয়ম, হামলা ও প্রার্থীদের অভিজ্ঞতার তথ্য তুলে ধরতে আজ গণশুনানি করবে বাম গণতান্ত্রিক জোট। জাতীয় প্রেস ক্লাব মিলনায়তনে সকাল ১০টা থেকে শুরু হয়ে এই গণশুনানি দিনভর চলবে। যেখানে ১৩১টি আসনে প্রতিদ্বন্দ্বিতাকারী বাম জোটের প্রার্থীরা তাদের অভিজ্ঞতা ও নির্বাচনী পরিবেশের চিত্র তুলে ধরবেন। বাম জোটের শীর্ষস্থানীয় নেতাদের পাশাপাশি শুনানিতে অংশ নিতে নির্বাচন কমিশন, মানবাধিকার কমিশনের প্রতিনিধি, দেশে-বিদেশি নির্বাচন পর্যবেক্ষক গ্রুপসহ সংবাদকর্মী ও পেশাজীবীসহ সমাজের নানা পেশার মানুষকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। গণশুনানির বিষয়ে বাম গণতান্ত্রিক জোটের মুখপাত্র ও শরিক দল বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টির সম্পাদক রুহিন হোসেন প্রিন্স বলেন, সদ্য শেষ হওয়া একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের প্রকৃত ঘটনা জানা ও দেশবাসীকে জানানোর জন্য বাম জোটের পক্ষ থেকে শুনানির আয়োজন করা হয়েছে।

এতে জোটের পক্ষে ১৩১টি আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নেয়া প্রার্থীরা উপস্থিত থাকবেন। প্রার্থীরা তাদের নিজ নিজ নির্বাচনী এলাকার ভোটের আগের এবং পরের সার্বিক পরিস্থিতি তুলে ধরবেন। নির্বাচনে কোন প্রার্থী কি ধরনের সমস্যায় পড়েছিলেন এবং ভোটারদের কি ধরনের মনোভাব ছিল তা গণশুনানিতে জানতে চাইবেন বাম জোটের শীর্ষ নেতারা।

তিনি বলেন, এসব প্রার্থীদের ঢাকায় আসার সময় একটি প্রতিবেদন সঙ্গে নিয়ে আসতে বলা হয়েছে। যেখানে ভোটে অনিয়ম-কারচুপির প্রমাণ, প্রতিটি কেন্দ্রের ভোটের হিসাব, নেতাকর্মী ও এজেন্ট গ্রেপ্তার তালিকা, নির্বাচনী সহিংসতায় আহত ও নিহতদের তথ্য উল্লেখ থাকবে।

তিনি বলেন, প্রার্থীদের শুনানি শেষে তাদের মতামত অনুযায়ী পরবর্তী সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হবে। প্রার্থীরা যদি সম্মত হন, তাহলে নির্বাচনী ট্রাইব্যুনালে মামলা করার জন্য তাদের সহযোগিতা করা হবে। এর পাশাপাশি অন্যান্য কর্মসূচিও ঘোষণা দেয়া হবে বলে জানান এই বাম নেতা। গণশুনানির বিষয়ে বিপ্লবী ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ও বাম জোটের অন্যতম সমন্বয়ক সাইফুল হক বলেন, একাদশ জাতীয় নির্বাচনের প্রকৃত চিত্র দেশবাসীর কাছে তুলে ধরতেই আমাদের প্রার্থীদের নিয়ে গণশুনানির আয়োজন করা হয়েছে।