খুলনায় আবারও বাস উল্টে  গৃহবধূ নিহত : আহত ১৫

405

নিজস্ব প্রতিবেদক :

খুলনার ডুমুরিয়ায় যাত্রী বাহি বাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গিয়ে ঘটনাস্থলে প্রাণ হারিয়েছেন নাছিমা বেগম (৪৫) নামে এক গৃহবধূ। এ সময় আহত হন কমপক্ষে ১৫ জন। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় চুকনগর-যশোর সড়ক ও উপজেলার নরনিয়া এলাকায় এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। চালক মোবাইলে কথা বলার কারণে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারায় বলে যাত্রীরা অভিযোগ করেছেন।
নিহত নাছিমা বেগম ডুমুরিয়া উপজেলার খর্ণিয়া ইউনিয়নের উকড়া গ্রামের হাবিবুর রহমানের স্ত্রী। পুলিশ নিহতের লাশ উদ্ধার করে খুমেক হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করেছে। এ নিয়ে খুলনায় টানা ৫ দিনে ৯জনের প্রাণহানির ঘটনা ঘটলো।
প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সুত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে চুকনগর বাস্ট্যান্ড থেকে একটি যাত্রীবাহি বাস (খুলনা মেট্রো-জ ০৪-০০২৬) যশোর অভিমুখে যাচ্ছিল। এ সময় চালক মোবাইল ফোনে কথা বলা শুরু করে এক পর্যায়ে নরনিয়া মাদরাসার কাছে পৌঁছালে বাসটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার ওপর উল্টে যায়। এতে বাসের যাত্রী নাছিমা বেগম (৪৫) ঘটনাস্থলেই মারা যান। আহত হন রোকেয়া বেগম (৪২), বারিক গাজী (৪৮), আশরাফুল সরদার (৪০), রবিউল ইসলাম (৩৫), শিশু হাবিবা (২), স্বপ্না বেগমসহ (২৫) কমপক্ষে ১৫ জন।
মাগুরাঘোনা পুলিশ ক্যাম্পের ইনচার্জ এস আই জাকারিয়া হোসেন জানান, বাসের চালক মোবাইলে কথা বলার কারণে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে বাস উল্টে এ দুর্ঘটনা ঘটে। একজন মহিলার মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। আহত হয়েছে কমপক্ষে ১৫ জন। আহতদের বিভিন্ন স্বাস্থ্য কেন্দ্রে প্রেরণ করা হয়েছে।