শপথের ব্যাপারে পূর্বের সিদ্ধান্তে অটল বিএনপি

207

আগামী ৩০ এপ্রিলের মধ্যে শপথের বাধ্যবাধকতা থাকায় বিষয়টি এখন আরো জোরালোভাবে সামনে চলে এসেছে। এ নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদও প্রকাশ হয়েছে। কেউ কেউ বলছে, বিএনপি সংসদে যাওয়ার ব্যাপারে গোপনে সরকারের সাথে আলোচনা চালিয়ে যাচ্ছে, আবার কিছু গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, খালেদা জিয়া মুক্তি পেলে বিএনপি সংসদে যাওয়ার ব্যপারে ইতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করতে পারে।

এ বিষয়ে মঙ্গলবার রাত সাড়ে ৯টায় বিএনপি মহাসচিব ও জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের মুখপাত্র মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে প্রশ্ন করা করা হলে, নয়া দিগন্তকে তিনি বলেন, সংসদে যাওয়ার ব্যপারে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট পূর্বে যে সিদ্ধান্ত নিয়েছিলো বিএনপি সে সিদ্ধান্তে অটল আছে।

বেগম খালেদা জিয়ার প্যারোল সম্পর্কে তিনি বলেন, দেশনেত্রী এই ব্যাপারে কোন মতামত দেননি।

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিএনপির ছয়জন প্রার্থী নির্বাচিত হন। এ প্রার্থীরা সোমবার বিএনপির গুলশান অফিসে মির্জা ফখরুলের সভাপতিত্বে বৈঠক করেন। সেখানে শপথ ও খালেদা জিয়ার মুক্তির বিষয়ে নিজেদের অবস্থান ও দলের অবস্থান নিয়ে আলোচনা হয়। তবে শপথের বিষয়ে এখনো কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানান বৈঠকে অংশ নেওয়া নেতারা।

তবে সোমবারের আলোচনা সভাকে আনুষ্ঠানিক ‘বৈঠক’বলতে চান না নির্বাচিতরা। ঠাকুরগাঁও-৩ আসন থেকে নির্বাচিত জাহিদুর রহমান বলেন, ‘এটা ঠিক বৈঠক না। যাঁরা নির্বাচিত হয়েছি তাদের মধ্যে পরিচিতি ও সৌজন্য সাক্ষাৎ ছিল। মহাসচিব বাদে বাকি পাঁচজন যাঁরা আছি তারা নিজেদের মধ্যে আলোচনা, কে কী অবস্থায় আছি, এলাকায় কী হচ্ছে, এগুলো নিয়েই কথা বলেছি।’ বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ ছয়জন একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নির্বাচিত হয়েছেন। সৌজন্য : নয়াদিগন্ত