খুলনায় ঠিকাদার শাওনের উপর হামলা , থানায় মামলা

192

খুলনা মহা-নগরীর ০৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সহ -সভাপতি মোঃ খালিদ আহাম্মেদ সহ তার লোকজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে । গত ২০ এপ্রিল  বাদী সৈয়দ আল আমীন বাদী হয়ে এই মামলা দায়ের করেন । মামলার আসামী মোঃ খালেদ আহাম্মেদ সহ- সভাপতি ০৭ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ, শেখ সেলিম, শেখ বাপ্পি, ফয়সাল শেখ, শেখ মাহমুদ।

মামলার এজাহারে বাদী উল্লেখ করেন,  তাঁর ভাতিজা সৈয়দ ইশতিয়াক আহাম্মেদ শাওন সরকারি মেঘনা তেল কোম্পানির একজন সুপ্রতিষ্ঠিত ঠিকাদার । ইতিপূর্বে যমুনা তেল কোম্পানির লেবার কন্ট্রাক্ট নিয়ে তার অজান্তে মেসার্স জামান এন্ড ব্রাদার্স প্রতিষ্ঠানের সিল প্যাড ও স্ট্যাম্প জাল করে লেবার কন্ট্রাক্ট টেন্ডার জমা দেন শেখ খালেদ আহাম্মেদ । এই বিষয়ে শাওন জানতে পারলে প্রতিবাদ করায় গত ১৯ এপ্রিল জুম্মার নামাজ শেষে শাওন বাড়ি ফেরার সময় খালিদ ও তার সঙ্গীরা বে আইনি জনতাবন্ধে গতিরোধ করে হত্যার উদ্দশ্য মারপিট করিবার জন্য লোহার রড, হকিস্টিক ও রামদা নিয়ে শাওনের উপর হামলা চালায় । শাওন প্রানে বাঁচার জন্য দৌরে বাড়ির ভিতর আশ্রয় নেয় কিন্তু খালেদের লোকেরা বাড়ির ভিতর ঢুকে তাকে মেরে আহত করে। এ সময় ঘরের আসবাবপত্র  ভাংচুর করে।  এই সময় শাওন কে বাঁচাতে আসলে তার মা, চাচি , ছোট বোন সহ শাওনের স্ত্রীর কে তারা বেধড়ক মারমিট করে বলে মামলার বিবরনীতে প্রকাশ থাকে ।

প্রকাশিত সংবাদের  প্রতিবাদ

গত ২০ শে এপ্রিল ২০১৯ তারিখ খুলনার স্থানীয় দৈনিক
জন্মভুমি, দৈনিক খুলনা অঞ্চল সহ কয়েকটি পত্রিকায় প্রকাশিত
“০৭ নং ওয়ার্ডে কমিউনিটি পুলিশিং কমিটির প্রতিবাদ
সভা” শিরনামে প্রকাশিত সংবাদতি আমার দৃষ্টিগোচর হয়।
সংবাদটি সম্পূর্ণ মিথ্যা, বানোয়াট উদ্দশ্য প্রণোদিত । তাই
উক্ত সংবাদটির তিব্র প্রতিবাদ ও নিন্দা জানাচ্ছি। বরঞ্চ
প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর থেকে স্ব-রাস্ট মন্ত্রণালয়ের সুরক্ষা ও জননিরাপত্তা
বিভাগের নির্দেশে মাদক দ্রব্য নিয়ন্ত্রন অধিদপ্তর কর্তৃক
তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসা পৃষ্ঠপোষক/ আশ্রয়-প্রশ্রয়দানকারী
ব্যাক্তিগন আমাকে সমাজে হেয় প্রতিপন্ন করার লক্ষে সংবাদ
দাতাকে মিথ্যা বানোয়াট ও ভুয়া তথ্য প্রদান করে সংবাদতি
পরিবেশন করেছে । বরঞ্চ গত ১৯-০৪-২০১৯ ইং তারিখ জুম্মার
নামাজ শেষে আমি বাড়ি ফেরার সময় মাদক ব্যবসা পৃষ্ঠপোষক/
আশ্রয়-প্রশ্রয়দানকারী খালিদ সহ তার বাহিনি বে আইনি
জনতাবন্ধে গতিরোধ করে হত্যার উদ্দশ্য মারপিট করিবার জন্য
লোহার রড, হকিস্টিক ও রামদা নিয়ে আমার উপর হামলা চালায়
যাহা খালিশপুর থানায় গত ২০-০৪-২০১৯ ইং তারিখে মামলা
দায়ের করা হয়েছে । মামলা নং ৩৭ কাজেই আমি সৈয়দ ইশতিয়াক

আহাম্মেদ শাওন প্রকাশিত সংবাদের বিরুদ্ধে তিব্র নিন্দা ও
প্রতিবাদ জানাচ্ছি ।

সৈয়দ ইশতিয়াক আহাম্মেদ
শাওন
পিতা-মৃত সৈয়দ
আক্তারুজ্জামান

সাং- পদ্মা রোড, খালিশপুর,
খুলনা।

মোবাইল নং- ০১৭১০-৮৬২৪২১