সাতক্ষীরা বাঁশদহা যুবলীগ অফিস ভাংচুর, মারপিট, থানায় মামলা

229

মোঃ বদরুজ্জামান খোকা ॥ সাতক্ষীরা জেলা প্রতিনিধি, 

সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বাঁশদহা ইউনিয়ন যুবলীগের দলীয় অফিসটি বর্তমান শিবির ক্যাডারদের দখলে। এছাড়া ইউনিয়ন যুবলীগের সাধারন সম্পাদক খোরশেদ আলম রিপন (৪০), সহ অনেকে মারপিট করে আহত করেছে তারা। এই ঘটনার আহত যুবলীগ নেতার স্ত্রী মোমেনা খাতুন বাদী হয়ে ১০ জনের নাম উল্ল্যেখ করে সদর থানায় মামলা (নং১৪) করেছেন। আসামীরা হলেন, কাওনডাঙ্গা বাজারের আবুল হোসেন (২২), হুমায়ূন কবির (২৮), হাওয়ালখালীর শহিদুল ইসলাম (৪৫), কাওনডাঙ্গার মিজান (৪০), গোবিন্দ কাটির সেলিম হোসেন (২৭) ও সরোয়ার শেখ (৫০)। মামলার বাদী মোমেনা খাতুনের থানায় দায়ের কৃত মামলা সূত্রে জানা যায় গত ২৯ শে এপ্রিল সন্ধ্যার দিকে আমার স্বামী খোরশেদ আলম রিপন সহ অন্যান্য দলীয় কর্মী সমার্থক নিয়ে দলীয় কাজে কাওনডাঙ্গা বাজারস্থ দলীয় অফিসে অবস্থান কর ছিলেন। এমন সময় হঠাৎ চিহ্নিত শিবির ক্যাডার আবুল হোসেন সহ ১০/১৫ জনের একটি সশস্ত্র দল চাইনিজ করাল,গাছ কাটার দা, রড সহ অন্যান্য দেশীয় অস্ত্র নিয়ে আমার স্বামী সহ অন্যদের উপর হামলা চালালে ঘটনাস্থলে আমার স্বামী সহ অনেকে গুরুতর আহত হয়। পরে স্থানীয় রা উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। অবস্থার অবনতি দেখে ডাক্তার খুলনা মেডিকেল কলেজে আমার ভাই ময়নুরকে রেফার্ড করে। এসময় জামাত শিবিরের ক্যাডাররা যুবলীগ অফিসে তালা ঝুলিয়ে দেয় এবং অফিসের মালামাল ভাংচুর করে নিজেদের দখলে নেয়। এই ঘটনার পুলিশ আসামী আমজাদ হোসেন কে গ্রেফতার করে এবং অন্য আসামীদের ধরার চেষ্টা চলছে বলে পুলিশ সূত্রে জানা যায়।