জাতির কল্যানে কাজ করতে হবে , খুলনা জেলা পরিষদের ইফতার অনুষ্ঠানে : শেখ হারুনুর রশীদ

469

মামুন মোল্য জেলা প্রতিনিধি (খুলনা )

খুলনা জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি, সাবেক বিরোধী দলীয় হুইপ শেখ হারুনুর রশীদ বলেছেন, পবিত্র রমজান মাস আমাদের যেমন ভাবে সিয়াম-সাধনার শিক্ষা দেয়, তেমন ভাবে ধর্মীয় অনুশাসনে মানুষের আত্ম শুদ্ধি করে থাকে। এজন্য রমজান মাসে মহান আল্লাহের নৈকট্য লাভের সম্ভবনা থাকে। মানুষ এই পবিত্র মাসে বেশি বেশি পরিমান দান, সদকা ও ইবাদত বন্দেগীতে আত্মনিয়াগ করে। সুতরাং আত্মশুদ্ধী করে সকলকে দেশ ও জাতির কল্যানে কাজ করতে হবে। তিনি পবিত্র এই মাসে বাংলাদেশের স্বাধীনতার স্থপতি, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান-এর আত্মার শান্তি এবং প্রধানমন্ত্রী দেশরতœ শেখ হাসিনার জন্য সকলের নিকট দোয়া প্রার্থণা করেন। তিনি রোববার, ২০ রমজান, খুলনা জেলা পরিষদ আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিলে সভাপতির বক্তব্যে এ সকল কথা বলেন।
নগরীর ইউনাইটেড ক্লাবে জেলা পরিষদ আয়োজিত দোয়া ও ইফতার মাহফিলে উপস্থিত ছিলেন খুলনা সিটি কর্পোরেশনের মেয়র, সাবেক প্রতিমন্ত্রী ও মহানগর আওয়ামীলীগের সভাপতি আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ হেলাল হোসেন, সাবেক সংসদ সদস্য মোল্ল্যা জালাল উদ্দিন, খুলনা চেম্বর অব কমার্স এন্ড ইন্ডাসট্রির সভাপতি,সাবেক মেয়র কাজি আমিনুল হক, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ আছাদুজ্জামান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ নূরে আলম, খুলনা প্রেস ক্লাবের সভাপতি এস.এম. হাবিব, সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাহেব আলী, আঞ্চলিক পরিচালক বাংলাদেশ বেতার খুলনা, পরিচালক ইসলামিক ফাউন্ডেশন খুলনা, নির্বাহী প্রকৌশলী তাপসী দাস, সরকারী মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ বিএম জাকির হোসেন, খুলনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডাঃ হামিদ আজগর, উপ-অধ্যক্ষ ডাঃ মেহেদী নেওয়াজ, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার মাহাবুবুর রহমান, মহানগর মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার অধ্যাপক আলমগীর কবীর, জেলা আ’লীগের সহ-সভাপতি এ্যাডঃ কাজী বাদশা মিয়া, গাজী মোহম্মদ আলী, এ্যাডঃ এমএম মুজিবুর রহমান, এএফএম মাকসুদুর রহমান ও বিএমএ সালাম, ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এ্যাডঃ সুজিত অধিকারী, যুগ্ম সম্পাদক এমডিএ বাবুল রানা ও সরফুদ্দীন বিশ্বাস বাচ্চু, সিনিয়র সাংগঠনিক সম্পাদক, মোঃ কামরুজ্জামান জামাল, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আলহাজ্ব জোবায়ের আহম্মেদ খান জবা, আলহাজ্ব মফিদুল ইসলাম টুটুল, দপ্তর সম্পাদক এ্যাড: ফরিদ আহম্মেদ, এ্যাডঃ নব কুমার চক্রবর্তী, এ্যাডঃ নিমাই চন্দ্র রায়, শ্যামল সিংহ রায়, ডাঃ তড়িৎ কান্তি ঘোষ, হালিমা ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ আকরাম হোসেন, শেখ শহিদুল ইসলাম, মুনসুর আলী খান ও মারুফুল ইসলাম, জেলা আ’লীগনেতা ডাঃ শেখ শহিদুল ইসলাম, এ্যাডঃ রবীন্দ্রনাথ মন্ডল, এ্যাডঃ মোস্তাফিজুর রহমান কালু, অধ্যাঃ আশরাফুজ্জামান বাবুল, নূরে আলম জোয়াদ্দার, এ্যাডঃ তারিক হাসান মিন্টু, রশিদুজ্জামান মোড়ল, জয়ন্তী রানী সরদার, শোভা রানী হালদার, উপজেলা ভাইস-চেয়ারম্যান শারাফত হোসেন মক্তি, শিরিন আক্তার ময়না, ফারজানা নিশি, জেলা মহিলা আ’লীগের সভাপতি জাহানারা শহিদ, সম্পাদক হোসনেয়ারা চম্মা, কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক মানিকুজ্জামান অশোক, যুবলীগনেতা সরদার জাকির হোসেন, সাইফুল ইসলাম খান, জলিল তালুকদার, জামিল খান, সাবেক ছাত্রনেতা সাদিকুর রশীদ অভি, এসএম ফরিদ রানা, মাহফুজুর রহমান সোহাগ, যুব মহিলালীগের আহবায়ক এ্যাডঃ সেলিনা আক্তার পিয়া, যুগ্ম আহবায়ক শারমিন রশীদ সীমা ও এ্যাডঃ জেসমিন আক্তার জলি, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি পারভেজ হাওলাদার ও সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন, জেলা পরিষদের সদস্য মোঃ আব্দুল মান্নান গাজী, শেখ আবু জাফর, নাহার আক্তার, কবির হোসেন খাঁন, সহকারী প্রকৌশলী মোঃ হাফিজুর রহমান খান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা এস. এম. মাহাবুবুর রহমান, উপ-সহকারী প্রকৌশলী বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, যুবলীগনেতা রেজাউল ইসলাম, তাপস জোয়াদ্দার, আরিফ চৌধুরী, মঞ্জুরুল ইসলাম, সাইফুর রহমান সুজন। এছাড়া বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ, রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ, সামাজিক-সাংস্কৃতিক সংগঠনের নেতৃবৃন্দ ও গণমাধ্যমকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন