শিরোমণি ট্রেনের ধাক্কায় ইজিবাইকের যাত্রী নাজমা বেগম নিহত

180

এম হুসাইন সাব্বির, খানজাহান আলী থানা প্রতিনিধি :

খুলনার খানজাহান আলী থানার শিরোমণি শহীদি শেখ সিরাজউদ্দিন সড়ক তেতুলতলা রেলক্রসিংয়ে রেললাইন পার হওয়ার সময় মালগাড়ী ট্রেনের সাথে ইজিবাইকের ধাক্কায় ঘটনাস্থলে ইজিবাইকের যাত্রী পুলিশ কনন্সটেবল রেশমার মা নাজমা বেগম (৪০)তার কন্য আফরিন(২) নিহত হয়েছে। এ সময় পুলিশ কনন্সটেবল রেশমা আক্তার সাথী (২৫), অজ্ঞাত মহিলা গুরুতর আহত হয়েছে। আহতদেরকে মুমুর্ষ অবস্থায় খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দূর্ঘটনায় ইজিবাইক চালক লাফিয়ে পালিয়ে গেছে। জানাগেছে, আজ শুক্রবার বেলা সোয়া ৩টায় শিরোমণি তেতুলতলা রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় শিরোমণি বাজার থেকে ছেড়ে আসা ইজিবাইক শিরোমণি মধ্যপাড়া যাওয়ার পথে দৌলতপুরগামী মালগাড়ী ট্রেনের সাথে ইজিবাইকের ধাক্কায় ঘটনাস্থলে ইজিবাইকের যাত্রী মহেশরপাশা পুলিশ ফাঁড়ীর পুলিশ সদস্য রেশমার মা নাজমা বেগম ও কন্যা আফরিন নিহত হয়ে। এ সময় পুলিশ সদস্য রেশমা খাতুন, এবং অজ্ঞাত মহিলা গুরুতর আহত হয়। গুরুতর আহতদেরকে খুলনা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। নিহত ও আহতদের সকলের বাড়ী শিরোমণি পশ্চিমপাড়া বলে জানানগেছে। প্রত্যাক্ষদর্শী জানান চারজন যাত্রী নিয়ে একটি ইজিবাইক রেলক্রসিং পার হওয়ার সময় কোন কিছু লক্ষ না করে রেললাইন পার হওয়ার সময় মালগাড়ী ট্রেন চলে আসে এ সময় ইজিবাইক চালক লাফিয়ে গেলেও ইজিবাইকের পিছে থাকা ৪ যাত্রী সহ গাড়ীটিকে ধাক্কা দিয়ে রেললাইনের পাশে ছিটকে ফেলে দিলে ঘটনাস্থলে দুইজন নিহত হয়। বাকীরা আহত হলে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে আহতদেরকে খুলনা মেডিকেলে কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করে। এলাকাবাসী জানিয়েছেন ব্যস্ততম এই রেলক্রসিংয়ে কোন গেটম্যান না থাকায় ছোট খাটো দূর্র্ঘটনা প্রায় ঘটে। সর্বেেশষ এই মর্মান্তিক দূর্ঘটনা ঘটলো। খানজাহান আলী থানার সেকেন্ড অফিসাস শওকত হোসেন ঘটনার সত্যতা স্বীকার করেছে।