খুলনা সোনাডাঙ্গায় কিশোরী গণধর্ষণের ঘটনায় ৯ জনের বিরুদ্ধে মামলা

325
মোঃ আল আমিন খান, খুলনা ব্যুরো   
খুলনায় কিশোরী গণধর্ষণের ঘটনায় ৯জনের নামউল্লেখ এবং অজ্ঞাত দুই-তিনজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে।
রোববার ওই কিশোরীর বোন সোহেলী আক্তার বাদী হয়ে সোনাডাঙ্গা থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন। সোনাডাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. মমতাজুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। পুলিশ জানায়, বেড়ানোর কথা বলে নিয়ে গিয়ে মহানগরের পল্লীমঙ্গল স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণির (১৪) ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছে বখাটেরা। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শনিবার (২৯ জুন) রাতে শাহাদাৎ, পরশ, আকাশ ও নুরুন্নবী নামে চার যুবককে আটক করা হয়েছে। খুলনা মহানগর পুলিশের উপ-কমিশনার (দক্ষিণ) মোহাম্মদ এহসান শাহ জানান, বান্ধবীর মাধ্যমে পল্লীমঙ্গল স্কুলের ৬ষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীর পরিচয় হয় শান্ত নামে এক যুবকের সঙ্গে। পরিচয়ের সূত্র ধরে তাদের মধ্যে সখ্যতা গড়ে ওঠে। শনিবার বিকেলে বেড়াতে নিয়ে যাওয়ার কথা বলে শান্ত ওই স্কুল ছাত্রীকে শেরে বাংলা রোডের জমজম মিষ্টির দোকানের কাছে বন্ধু নুরুন্নবীর বাসায় নিয়ে যায়। সেখানে ওই স্কুলছাত্রীকে পালাক্রমে ধর্ষণ করা হয়। পরে মেয়েটির কান্নাকাটিতে আশেপাশের লোকজন সোনাডাঙ্গা থানা পুলিশকে খবর দেয়। পরে পুলিশ গিয়ে তাকে উদ্ধার করে খুলনা মেডেকিলে কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টার (ওসিসি) ভর্তি করে। এরপরে নগরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে ধর্ষণের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে চারজনকে আটক করা হয়েছে। তাদের থানায় রেখে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এছাড়া শান্তসহ অন্যদের গ্রেফতারে অভিযান অব্যাহত রয়েছে বলেও জানানো হয়।