খুলনা জেলা পরিষদ কর্তৃক বঙ্গবন্ধুর ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী পালন

126

খুলনা অফিস : হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ৪৪তম শাহাদত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস-২০১৯ জাতীয় অনুষ্ঠানের সাথে সংগতি রেখে খুলনা জেলা পরিষদ কর্তৃক যথাযথ সম্মানের সাথে পালন করা হয়েছে। ঐ দিন ভোর ০৬.৩০ টায় খুলনা জেলা পরিষদ কার্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ তাঁর পরিবারের সকল শহীদের প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পণ এবং একই সাথে জাতীয় পতাকা অর্ধনমিত করণ এবং কালো পতাকা উত্তোলন করেন খুলনা জেলা পরিষদের অস্থায়ী চেয়ারম্যান জনাব মোঃ সাজ্জাদুর রহমান, জেলা পরিষদের সদস্য জনাব জেসমিন পারভীন জলি, জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মোঃ আছাদুজ্জামান, প্রশাসনিক কর্মকর্তা জনাব এস. এম. মাহাবুবুর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী জনাব মোঃ হাফিজুর রহমান খান, উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনাব বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, তত্ত্বাবধায়ক, করোনেশন কারিগরী বিদ্যালয়, আব্দুর রহিম, হিসাব রক্ষক সোমা দাসসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।

বৃহস্পতিবার সকাল ৮.৩০ টায় অস্থায়ী চেয়ারম্যানের নেতৃত্বে জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত শোক র‌্যালিতে অংশগ্রহন করা হয় ও র‌্যালি শেষে বাংলাদেশ বেতার, খুলনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর প্রতিকৃতিতে পুস্পস্তবক অর্পনের মাধ্যমে বিন¤্র শ্রদ্ধা নিবেদন করা হয়। বাদ জোহর খুলনা জেলা পরিষদ মিলনায়তনে কোরআনখানি, আলোচনা সভাসহ দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়। উক্ত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন অস্থায়ী চেয়ারম্যান জনাব মোঃ সাজ্জাদুর রহমান, বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন খুলনা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক জনাব মোঃ সাহেব আলী, জেলা পরিষদ সদস্য জনাব জেসমিন পারভীন জলি, জনাব সরদার আবু সালেহ এবং সভাপতিত্ব করেন জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব মোঃ আছাদুজ্জামান। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালন করেন প্রশাসনিক কর্মকর্তা জনাব এস. এম. মাহাবুবুর রহমান।

আলোচনা অনুষ্ঠানে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালী, স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর জীবনীর উপর আলোকপাত করেন জেলা পরিষদ সদস্য জনাব জেসমিন পারভীন জলি এবং জনাব সরদার আবু সালেহ, আলোচনা অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু দর্শন নিয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। আলোচনা শেষে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন জেলা পরিষদ জামে মসজিদের পেশ ইমাম জনাব শেখ বায়েজীদ হোসেন। মোনাজাত শেষে দুঃস্থ, এতিম ও সাধারণের মধ্যে খাবার বিতরণ করা হয়।

উক্ত অনুষ্ঠান গুলিতে উপস্থিত ছিলেন জয়ন্তী রানী সরদার, জেসমিন পারভীন জলি, সরদার আবু সালেহ, চৌধুরী মোহাম্মদ রায়হান ফরিদ, খুলনা প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক মোঃ সাহেব আলী, জেলা পরিষদ প্রশাসনিক কর্মকর্তা জনাব এস. এম. মাহাবুবুর রহমান, সহকারী প্রকৌশলী জনাব মোঃ হাফিজুর রহমান খান, উপ-সহকারী প্রকৌশলী জনাব বিপ্লব কুমার বিশ্বাস, তত্ত্বাবধায়ক, করোনেশন কারিগরী বিদ্যালয়, আব্দুর রহিম, হিসাব রক্ষক সোমা দাসসহ অন্যান্য কর্মকর্তা-কর্মচারীবৃন্দ।