সদকী ইউনিয়ন সর্বপ্রথম গ্রাম হবে শহর : চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ 

180
কুষ্টিয়া  থেকে ফিরে আরিফুর রহমান / রনি মজুমদার
সারা বাংলাদেশে ভিক্ষুকমুক্ত ইউনিয়নের কার্যক্রম শুরু হয়েছিল আমার এই সদকী ইউনিয়নে এবার আমার গ্রাম আমার শহরের বাস্তবায়ন শুরু হবে আমাদের এই সদকী ইউনিয়নে বলে জানান কুমারখালী উপজেলা যুবলীগের সাবেক সভাপতি এবং সদকী ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান আব্দুল মজিদ।
CINtv24 এর প্রতিনিধিদল এর সাথে বলেন, ২০১৬ সালের ৭ই আগস্ট আমি সদকী ইউনিয়নের চেয়ারম্যান হিসেবে শপথ গ্রহন করি। কুস্টিয়ার ঐতিহ্যবাহী কুমারখালী উপজেলার এই এলাকাটি ছিল অনেক অবহেলিত।  দলিত এই জনপথে আমি এসেই উদ্যোগ নেই ভিক্ষুকমুক্ত ইউনিয়ন গড়ার। তখনো সরকারের ভিক্ষুকমুক্ত বাংলাদেশ গড়ার ঘোষণা আসে নি। শপথ গ্রহন করার পর ৮ই আগস্ট আমি এই এলাকার সমস্ত ভিক্ষুকদের নিয়ে বসি এবং তাদের সমস্যা জেনে তাদের পুনর্বাসিত করি। কাজের স্বীকৃতি স্বরুপ আমি ২০১৭ সালে উপজেলা প্রশাসনের কাছ থেকে সেরা চেয়ারম্যান হিসেবে পুরস্কার গ্রহন করি। এবার মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ভিশনকে সামনে রেখে গ্রাম হবে শহর বাস্তবায়নে কাজ করে যাচ্ছি। ইতিমধ্যেই গত জানুয়ারিতে এই বিষয়ে সেমিনার করেছি। তবে প্রধানমন্ত্রীর এই চিন্তাকে বাস্তবায়িত করতে হলে বিভিন্ন বরাদ্দ এবং কাজ বন্টনের ক্ষেত্রে নজরদারী বাড়াতে হবে, বিশেষ করে দালাল শ্রেণীর হাত থেকে।  যদি এই দালাল শ্রেনীর হাত থেকে এই বরাদ্দকৃত কাজ সঠিক যায়গায় সঠিক মানুষ এর দ্বারা কাজ করা যায় তবেই এই উন্নয়ন ত্বরান্বিত করা সম্ভব। তবে আমার ইউনিয়নে আমি চ্যালেঞ্জ নিয়েই এই কাজ করছি এবং বাংলাদেশের মধ্যে যে ইউনিয়নটি শহুরে নাগরিক সুবিধাযুক্ত এলাকা হবে তা হবে কুমারখালীর এই সদকী ইউনিয়ন। তার জন্য আমি আমার এলাকাবাসী  সহ সরকার প্রধানের সহযোগীতা এবং দোয়া কামনা করছি।